Mujib Logo

  • +880244814020
  • Fax: +880244814003
  • info@sau.edu.bd

News and Event Details

নানা আয়োজনে শেকৃবি’তে বিশ্ব দুগ্ধ দিবস-২০২৪ পালিত

Post Date: 2024-06-02
image

তারিখ: ০২-০৬-২০২৪ ইং 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
নানা আয়োজনে শেকৃবি’তে বিশ্ব দুগ্ধ দিবস-২০২৪ পালিত

“বৈশ্বিক পুষ্টিতে দুগ্ধ অপরিহার্য” এ শ্লোগানকে সামনে রেখে শেকৃবিতে বিশ্ব দুগ্ধ দিবস-২০২৪ পালিত হয়েছে। আজ রবিবার ০২ জুন সকাল ১০:০০ ঘটিকায় এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের সামনে থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রার মাধ্যমে দিবসটির সূচনা করা হয়। র‌্যালি শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেইরি বিজ্ঞান বিভাগের আয়োজনে শেখ রাসেল টিএসসি কমপ্লেক্স এর অডিটরিয়ামে এক সেমিনার ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব মোঃ আব্দুর রহমান এমপি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ, কৃষিবিদ জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম এমপি, শেকৃবি’র মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোঃ শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. অলোক কুমার পাল, ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোঃ নজরুল ইসলাম। সভায় সভাপতিত্ব করেন এএসভিএম অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. কেবিএম সাইফুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. উদয় কুমার মহন্ত। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডেইরি বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আসাদুজ্জামান। 

অনুষ্ঠানের কিনোট স্পিকার ডেইরি বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো. আসাদুজ্জামান তার বক্তব্যে দুধের উপকারিতার কথা উল্লেখ করে বলেন, দুধের মধ্যে বিদ্যামান ল্যাকটোজ আমাদের জন্য উপকারী। দুধের ফ্যাটের কোনো ক্ষতিকর দিক নেই। যদিও অন্যান্য ফ্যাটের অপকারিতা রয়েছে। তাই প্রচলিত ভুল জ্ঞান বাদ দিয়ে আমাদের দুধ উৎপাদন ও গ্রহনের দিকে গুরুত্ব দিতে হবে।

তিনি আরও বলেন দুধ সব বয়সের মানুষের জন্য একটি আদর্শ খাবার। ব্রেণের বিকাশে বাচ্চাদের ছোট বেলা থেকেই দুধ পানের অভ্যাস তৈরি করতে হবে। দুধ দেহের পেশি গঠন ও ক্ষয়পূরণে কার্যকর এবং খনিজ উপাদান শোষনে সহায়ক। দুধ খেলে ক্যান্সার হয় এটি অনেকের ভ্রান্ত ধারনা। বরং দুধে উপস্থিত কিছু উপাদান ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। দৈনিক ২৫০ মিলি দুধ পান করলে ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা ৪০ শতাংশ কম থাকে। এটি মানবদেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী জনাব মোঃ আব্দুর রহমান এমপি বলেন, দেশের মানুষের দুধের ও পুষ্টির চাহিদা পূরণে দুধ উৎপাদন বাড়াতে হবে। তবে এক্ষেত্রে প্রান্তিক খামারিদের দুধের ন্যায্য মূল্য প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় উৎপাদন বৃদ্ধি সহজতর হবে না।

তিনি আরও বলেন স্বাধীন ভূখণ্ডে কীভাবে খাদ্যে, পুষ্টিতে, মাছে, ভাতে, উন্নয়নে সর্বাঙ্গীন একটি দেশ যে দেশটি বিশ্বে উন্নয়নের সাথে সাথে তাল মিলিয়ে চলবে সে ভাবনাটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান করেছিলেন। সে কারণে দেশ স্বাধীনের পর ১৯৭৩ সালে তিনি অস্ট্রেলিয়া থেকে ফ্রিজিয়ান জাতের উন্নত গাভী আমদানীর কথা চিন্তা করেছিলেন। 

আলোচনায় শেকৃবির ভাইস-চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোঃ শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া বলেন, প্রাণিসম্পদের সকল ক্ষেত্রেই আমাদের যথেষ্ট অগ্রগতি হয়েছে। বর্তমান সরকারের পরিকল্পনা, নীতি, আর্থিক সহায়তা, ভুতর্কী, বিজ্ঞানীদের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং এই বিভাগের গ্রাজুয়েটদের সমন্বিত কার্যক্রমের ফলে এ সেক্টরে অভূতপূর্ব সাফল্য এসেছে। আগামি দিনে এ শিল্প আরো এগিয়ে যাবে সে প্রত্যাশাও তিনি করেন। 

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, পরিচালক, বিভাগীয় চেয়ারম্যান, রেজিস্ট্রার, হল প্রভোস্ট, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বিশ্ব দুগ্ধ দিবস-২০২৪ কে কেন্দ্র করে ফ্রিতে দৈনিক ১০০ এতিম শিশুকে ২৫০ মিলি দুধ খাওয়ানোর কার্যক্রম গ্রহন করা হয় এবং এই কার্যক্রম বছর ব্যাপি চলবে বলে উল্লেখ করা হয়। বাংলাদেশ কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দের অর্থায়নে শেকৃবির এএসভিএম অনুষদ কর্তৃক এ উদ্যোগ গ্রহন করা হয়।

কৃষিবিদ এ. এইচ. এম. মোস্তফা কামাল 
জনসংযোগ কর্মকর্তা, শেকৃবি, ঢাকা 
মোবাইল-০১৭৪৩-০৪৪১২৮